মৃত্যু পথযাত্রী মুসলিম নারীকে কালেমা পড়ে শোনালেন হিন্দু চিকিৎসক

ভারতে হিন্দু-মুসলমানসহ বিভিন্ন ধ'র্মের মানুষের বাস। প্রায়ই দেশটিতে ধ'র্মীয় সহিং'সতার খবর পাওয়া যায়। তবে হিন্দু-মুসলিম আন্তঃধ'র্মীয় সম্প্রীতির কথাও উঠে আসে প্রায়ই। কিন্তু চলমান মহা'মা'রি করো’নায় সব ভেদাভেদ ভুলে একে অ’পরের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তারা। ঘটছে নানা বিচিত্র ঘটনাও। করো’নায় আ'ক্রা'ন্ত মৃ'ত্যু পথযাত্রী এক মুসলিমকে কালেমা পড়ে শুনিয়েছেন দেশটির চিকিৎসক রেখা কৃষ্ণা।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে কেরালার পলাক্করের পতম্বির সেবানা হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারে ভর্তি হন করো’না আ'ক্রা'ন্ত এক মুসলিম নারী। ওই হাসপাতালেরই চিকিৎসক রেখা কৃষ্ণা চিকিৎসা করছিলেন তার। অবস্থা খারাপ হওয়ায় আইসিইউতে রাখা হয় ওই রোগীকে। তবে কিছুতেই তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল না। চিকিৎসক বুঝতে পারছিলেন ওই রোগীকে কোনোভাবেই সুস্থ করে তোলা সম্ভব নয়।

স্বজনদেরও সেকথা জানিয়েও দিয়েছিলেন তিনি। যেহেতু করো’না আ'ক্রা'ন্ত তাই ওই মহিলার স'ঙ্গে স্বজনদের কেউই দেখা করতে পারছিলেন না। এদিকে, একদিন রেখা বুঝতে পারেন রোগীর নাড়ির স্পন্দন ধীর হচ্ছে। ঠিকমতো নিঃশ্বা'স নিতেও পারছেন না। সেই সময় রোগীর কানের কাছে গিয়ে আস্তে আস্তে পবিত্র কলেমা পড়তে থাকেন ওই চিকিৎসক। রেখা দেখেন কলেমা পড়ামাত্রই রোগী গভীর শ্বা'স নেন। তারপরই মৃ'ত্যু হয় তার।

রেখা জানান, তিনি দুবাইতে বেড়ে উঠেছেন। তাই ইসলাম ধ'র্ম সম্পর্কে কমবেশি জানেন তিনি। সে কারণেই মৃ'ত্যুপথযাত্রী করো’না রোগীর কানে কলেমা পড়ে শুনিয়েছিলেন রেখা। এমনিতেই করো’নাক্রা'ন্তদের থাকতে হচ্ছে নিভৃতবাসে। ফলে অবস্থা খারাপ হলেও মৃ'ত্যুপথযাত্রীর স'ঙ্গেও শেষ দেখা করার সুযোগ পাচ্ছেন না পরিবারের লোকজনও। এসময় চিকিৎসকরাই একমাত্র ভরসা রোগীদের। তাই মুসলিম রোগীর জীবনের শেষ মুহূর্তে ধ'র্মের ভেদাভেদ ভুলে হিন্দু চিকিৎসকের এমন আচরণ নিঃসেন্দে'হে প্রশংসার দাবিদার।

About admin

Check Also

রিমান্ড শেষে কারাগারে মামুনুল

ছয় মা'মলায় ১৮ দিনের রি'মান্ড শেষে কারা'গারে পাঠানো হয়েছে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে। আজ শনিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *