কলেজছাত্রী ও মায়ের গোপন ভিডিও ধারণ করে তারা

চট্টগ্রাম নগরীতে কলেজছাত্রী ও তার মায়ের গো'পন ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে ছড়ানোর অ'ভিযোগে দুই জনকে গ্রে'ফতার করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট।

বুধবার (৭ এপ্রিল) চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ থানার প্রবর্তক সং'ঘ এলাকা ও নন্দনকানন এলাকায় অ'ভিযান চালিয়ে তাদের গ্রে'ফতার করা হয়। গ্রে'ফতাররা হলেন- অ'ভিষেক সেন শর্মা (১৯) ও সুতনু সাব্যসাচী (১৮)।

বি'ষয়টি নিশ্চিত করেছেন নগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন। তিনি বলেন, ব্ল্যা'কমেইলের শিকার মা ও মেয়ে কাউন্টার টেরোরিজমে অ'ভিযোগ করেন, কে বা কারা' গো'পনে তাদের পোশাক পরিবর্তনের ভিডিও গো'পনে ধারণ করে ফেসবুকের ফেইক আইডির মাধ্যমে আপলোড করে টাকা চেয়ে হু’মকি দিচ্ছে।

অ'ভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার (৭ এপ্রিল) প্রযুক্তির সহায়তায় পাঁচলাইশ থানার প্রবর্তক সং'ঘ এলাকা থেকে অ'ভিষেক সেন শর্মাকে গ্রে'ফতার করা হয়। এসময় ভিডিও সংরক্ষিত মোবাইলটি জব্দ করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পরে নগরীর নন্দনকানন এলাকা থেকে ফেইক আইডি ব্যবহারকারী সুতনুকে গ্রে'ফতার করা হয়। এ সময় ফেইক আইডি লগইন করা অবস্থায় মোবাইলটি জব্দ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আ'সামিরা জানিয়েছেন- মা ও মেয়ের জানালার ফাঁ'ক দিয়ে কৌশলে ভিডিও ধারণ করে তারা। ফেসবুক ও বিভিন্ন সাইটে ভিডিও ছড়িয়ে টাকা চাওয়ার বি'ষয়টি স্বীকার করেছেন তারা।

এ ঘটনায় আরও একজন জড়িত আছে। তাকে গ্রে'ফতারের চেষ্টা অব্যা'হত আছে বলে জানান অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আসিফ মহিউদ্দীন। গ্রে'ফতারদের বিরু'দ্ধে পাঁচলাইশ মডেল থানায় প'র্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণে মা'মলা করা হয়েছে।

About admin

Check Also

রিমান্ড শেষে কারাগারে মামুনুল

ছয় মা'মলায় ১৮ দিনের রি'মান্ড শেষে কারা'গারে পাঠানো হয়েছে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে। আজ শনিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *