স্লিভলেস ব্লাউজ পরে বইমেলায় গিয়ে কী অপরাধ করেছি? : ভাবনা

২০২১ সালে স্লিভলেস ব্লাউজ নিয়ে কথা বলতে হয়, এটা নিয়ে আমাকে হেয় করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এর চেয়ে ল'জ্জার আর কিছু নেই।

ষাটের দশকে, সত্তর দশকেও স্লিভলেস ব্লাউজ পরতো আমা'দের দাদি-নানিরা। তখনও এটা স্বাভাবিক ছিল। অথচ এই সময়ে এসে স্লিভলেস ব্লাউজের কারণে কথা হচ্ছে- এর চেয়ে ল'জ্জার আর কী 'হতে পারে?

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় অ'ভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনার কয়েকটি ছবি ভাইরাল হয়। ছবিগু'লো বইমেলায় কেউ তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন। এরপরে সেসব ভাইরাল হয়। চলতি বছজর বইমেলায় ভাবনার ‘গো'লাপি জমিন’ নামের একটি উপন্যাস প্রকাশ হয়েছে। এই উপন্যাসের জন্যই মেলায় গিয়েছিলেন ভাবনা। পাঠক ও ভক্তদের অটোগ্রাফ দিয়েছেন। সেসময়ের কয়েকটি ছবি সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়।

ভাবনা বলেন, ‘একটি শ্রেণি সারাদিন ফেসবুকে পড়ে থাকে শুধু মেয়েদের ছবির নিচে বাজে মন্তব্য করার জন্য। এদের কাজ নেই। সারাদিন এরা ওঁত পেতে থাকে কখন মেয়েরা ছবি পোস্ট করবে আর সেখানে তারা বাজে মন্তব্য করবে। এরা নিম্ন মানসিকতার। এদের মন্তব্যই আমি দেখি না। কিন্তু দিনশেষে আমিও তো মানুশ্বহ আমা'রও তো পরিবার আছে কত সহ্য করা যায় এসব।’

এই শ্রেণী অসুস্থ উল্লেখ করে ভাবনা বলেন, ‘যারা দিলারা জামানের মতো একজন অ'ভিনেত্রীর ছবির নিচে গিয়ে বাজে মন্তব্য করতে পারে তাদের দ্বারা সবই সম্ভব। এরা মানসিক বিকারগ্রস্ত, অসুস্থ। এদের চিকিৎসা হলো শাস্তি। এদের কাছে পেলে হয়তো বোঝাতে পারতাম।’

এসব থেকে উত্তরণের পথ আছে জানিয়ে বলেন, ‘আমা'দের সরকার- আমা'দের পুলিশ যদি একটু সহায়তা করতো তাহলে এইসব অ’পরাধ হয়তো অনেকটা কমে যেতে পারতো। সাইবার ক্রা'ইমের তত্ত্বাবধানে যদি ১০ জন এরকম অ’পরাধীকে ধরে শাস্তি দেওয়া যেত তাহলে একটা দৃষ্টান্ত তৈরি 'হতে পারতো। এই দৃষ্টান্ত এইসব অ’পরাধ অনেক কমিয়ে দিতে পারতো।’

নিজের পোশাক সম্পর্কে ভাবনা বলেন, ‘আমি আপনার স'ঙ্গে এই মুহূর্তে কথা বলছি জিম করা অবস্থায়। এখন যে পোশাকে রয়েছি নিশ্চই এই পোশাকে আমি বইমেলায় যাব'ো না। শাড়ি ও হাতাকা'টা ব্লাউজে কী সমস্যা? যথেষ্ট শালীন পোশাক পরেই আমি বইমেলায় গিয়েছি। স্লিভলেস ব্লাউজ পরে বইমেলায় গিয়ে কী অ’পরাধ করেছি। পাঠকদের অটোগ্রাফ দিয়ে অ’পরাধ করেছি? যদি এই পোশাক অ’শ্লী'ল হয় তাহলে তো অ’শ্লী'লতার সঙগাই বদলে গেছে কিংবা আমা'র জানা নেই।’

আশনা হাবিব ভাবনা অ'ভিনেত্রী হিসেবে সুপরিচিত। এর পাশপাশি লেখালেখি করেন ভাবনা। রয়েছে একটি কবিতার বই ও তিনটি উপন্যাস। ভাবনা বলেন, ‘আমি আমা'র লেখায় মেয়েদের নিয়ে লিখি, তাদের চরিত্রকে ফুটিয়ে তুলি। যখন নামাকেও এইরকম হে'নস্থার মুখোমুখি 'হতে হয়, তখন ভাবি আমর'া কি এগিয়ে যাচ্ছি নাকি আসলেই পিছিয়ে যাচ্ছি। কঠিন প্রশ্নের মুখে পড়ে যাই।’

About admin

Check Also

রিমান্ড শেষে কারাগারে মামুনুল

ছয় মা'মলায় ১৮ দিনের রি'মান্ড শেষে কারা'গারে পাঠানো হয়েছে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে। আজ শনিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *