মিয়ানমারে সেনাদের রুখতে নারীদের ‘লুঙ্গি ব্যারিকেড’

মিয়ানমা'রে সামর'িক সরকারকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে হটাতে দেশটির বিভিন্ন এলাকায় আন্দোলন করছেন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ। আন্দোলন করতে গিয়ে সেনাবাহিনীর বুলেটে মানুষের মৃ'ত্যু হলেও পিছু হটেনি জনগণ। আন্দোলনের ধা'রাবাহিকতা ধরে রাখতে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে।

অন্যদিকে বিক্ষো'ভ দমাতে প্রতিদিন গু'লি ছুড়ছে সেনাবাহিনী। এতে এ পর্যন্ত নি'হত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। এই অবস্থায় সেনা–পুলিশ ঠেকাতে অ'ভিনব কৌশল বেছে নিয়েছেন মিয়ানমা'রের নারীরা। সেনা ও পুলিশের গতিরোধে পথে পথে বসিয়েছেন ব্যারিকেড। আর তাতে ব্যবহৃত হচ্ছে নারীদের পরনের লু'ঙ্গি!

লু'ঙ্গি মিয়ানমা'রের নারীদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক। চলমান আন্দোলনে সেনা ও পুলিশের অ'স্ত্রের বিরু'দ্ধে লু'ঙ্গি ব্যবহার করা হচ্ছে। লু'ঙ্গির স'ঙ্গে পথের ব্যারিকেডে শোভা পাচ্ছে নারীদের স্কার্ট, পাজামাসহ রংবেরঙের নানান পোশাক। মূলত শরীরের নিচের অংশে ব্যবহার হওয়া পোশাক ব্যারিকেডে ব্যবহার হচ্ছে। সেনা চলাচলের পথগু'লোয় আড়াআড়ি র'শি বেঁধে সেখানে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে এসব পোশাক।

এমনকি পথের মধ্যে ফেলে রাখা হয়েছে নারীদের পোশাক। এতে কাজও হচ্ছে। অনেক এলাকা মাড়াচ্ছেন না নিরাপ'ত্তা বাহিনীর লোকজন। মিয়ানমা'রের লোকজন বিশ্বা'স করেন নারীদের ঝুলন্ত পোশাকের নিচ দিয়ে যাওয়াটা তাদের পৌরুষত্বের জন্য অবমাননাকর। এতে তাদের পৌরুষের গর্ব ভূলুণ্ঠিত হবে।

মূলত এ কারণে রাজপথে নারীদের লু'ঙ্গি ব্যারিকেডের নিচ দিয়ে যেতে চাইছে না সেনা-পুলিশরা। মিয়ানমা'রের নাগরিক থিনজার সুন লেই বলেন, সামর'িক সরকারের বিরু'দ্ধে মিয়ানমা'রের নারীদের এটি একটি রক্ষণাত্মক কৌশল হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। সূত্র : এএফপি

About admin

Check Also

রিমান্ড শেষে কারাগারে মামুনুল

ছয় মা'মলায় ১৮ দিনের রি'মান্ড শেষে কারা'গারে পাঠানো হয়েছে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে। আজ শনিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *