মহামারীর বিধিনিষেধ এড়াতে উড়োজাহাজ ভাড়া করে আকাশে বিয়ে!

করো’নাভাইরাস মহা'মা'রীর মধ্যে জনসমাগমের উপর আরোপিত বিধিনিষে'ধ এড়াতে ভারতের তামিল নাড়ুর এক জুটি রীতিমত উড়োজাহাজ ভাড়া করে ১৬০ জনের বেশি অতিথি নিয়ে মাঝ আকাশে বিয়ে করেছেন।

এমন দিনে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে যেদিন ভারতে কোভিড-১৯ এ আ'ক্রা'ন্ত হয়ে মৃ'তের সংখ্যা তিন লাখ ছাড়িয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রকৃত মৃ'তের সংখ্যা আরো অনেক বেশি।

করো’নাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারতে ভাইরাসের বিস্তার রোধে জনসমাগমের উপর নানা বিধিনিষে'ধ আরোপ করা হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া বিভিন্ন ভিডিওতে প্রশাসনের কর্মক'র্তাদের জনসমাগমের বিরু'দ্ধে আরোপ করা বিধি ল'ঙ্ঘন করে আয়োজিত বিয়ের অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিতেও দেখা গেছে।

ভারতে জনসমাগমের উপর আরোপিত সর্বশেষ বিধি অনুযায়ী, বিয়েতে ৫০ জনের বেশি অতিথি থাকতে পারবেন না।

বিবিসি জানায়, স্পাইসজেট এর একটি বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ মা'দুরাই থেকে ব্যা'ঙ্গালুরু পর্যন্ত দুই ঘণ্টার জন্য ভাড়া করে বিয়ের আয়োজন করা হয়।

XMA Header Image
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিয়ের ভিডিওতে ভাড়া করা উড়োজাহাজের ভেতর বর-কনে এবং অতিথিদের গাদাগাদি করে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারতে দেখা যায়।

যা নিয়ে রীতিমত হইচই পড়ে গেছে। ভারতের বিমান পরিবহন ক'র্তৃপক্ষ এ বি'ষয়ে ত'দন্ত শুরু করেছে বলে জানায় স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম।

ডিরেক্টর জেনারেল অব সিভিল এভিয়েশনের এক কর্মক'র্তা টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেন, স্পাইসজেট এর সেসব কর্মী ওই ফ্লাইটে ছিলেন তাদের ছুটিতে রাখা হয়েছে।

ওদিকে, স্পাইসজেট ক'র্তৃপক্ষ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, বিয়ের পর অতিথিদের মা'দুরাই থেকে ব্যা'ঙ্গালুরু নিয়ে যাওয়ার জন্য একজন ট্রাভেল এজেন্ট তাদের ওই উড়োজাহাজটি ভাড়া করেন।

তিনি বলেন, ‘‘আমর'া আমা'দের মক্কেলকে পরিষ্কার ভাবে বলেছিলাম যে, তাদের কোভিড স্বাস্থ্যবিধির পুরোটা মেনে চলতে হবে। উড়োজাহাজের ভেতর কোনও ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুমতিও আমর'া দেইনি।”

গত মা'র্চ থেকে ভারতে করো’নাভাইরাস সংক্রমণের গতি আবার ঊর্ধ্বমুখী হয়। এপ্রিল ও মে মাসে অবস্থা এতটাই নাজুক হয়েছে পড়েছে যে লাখ লাখ মানুষ প্রতিদিন সংক্রমিত হচ্ছে এবং হাজার হাজার মানুষ মা'রা যাচ্ছেন।

XMA Header Image
হাসপাতালগু'লোতে অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে, অক্সিজেনের অভাবে প্রায়ই একস'ঙ্গে অনেক রোগী মা'রা যাচ্ছেন। হাসপাতালগু'লোতে রোগীর উপচে পড়া ভিড়। জায়গা না পেয়ে অনেক রোগী হাসপাতালের সামনেই মা'রা যাচ্ছেন। চিকিৎসার অভাবে বাড়িতে কত মানুষ মা'রা যাচ্ছেন তার তো কোনো পরিসংখ্যানই নেই।

দিন-রাত শ্মশান জ্বলছে, তারপরও বহু মৃ'তদে'হ সৎকার করা যাচ্ছে না। কবরস্থানেও আর জায়গা হচ্ছে না। অনেকে তাই স্বজনদের মৃ'তদে'হ নদীতে ভাসিয়ে দিচ্ছেন। উত্তর প্রদেশ ও বিহারে নদীতে প্রচুর লা'শ ভেসে আসছে।

About admin

Check Also

রিমান্ড শেষে কারাগারে মামুনুল

ছয় মা'মলায় ১৮ দিনের রি'মান্ড শেষে কারা'গারে পাঠানো হয়েছে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে। আজ শনিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *