তরুণ কর্মীদের আস্ফালনে মানুষ উন্নয়ন ভুলে যাবে: তথ্যমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সকলের সাথে বিনয়ী আচরণের জন্য দলের তরুণ নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

ম'ঙ্গলবার (১৮ মে) সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪০তম স্বদেশ প্রত্যাব'র্তন দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকলে বিনয়ী 'হতে হয়। জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি ও দৃঢ়চেতা নেতৃত্বের কারণে আমর'া পরপর তিনবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়েছি, তাই বলে অনেক নেতাকর্মীর মধ্যে আলস্য এসেছে, এই আলস্য কাম্য নয়। মনে রাখতে হবে বহু উন্নয়ন হয়েছে, সেই উন্নয়নের সাথে যদি আমা'দের তরুণ কর্মীদের আস্ফালন থাকে, মানুষ সেই উন্নয়ন ভুলে যাব'ে, আমা'দেরকে পছন্দ করবে না।

XMA Header Image
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ব'ঙ্গবন্ধুর প্রতিপক্ষ, তারা এদেশের স্বাধীনতা চায়নি, তারা ষ'ড়যন্ত্র করেছিলো। এখনো যারা ব'ঙ্গবন্ধুকন্যার প্রতিপক্ষ, তারা রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করতে ব্য'র্থ হয়েছে, কিন্তু ষ'ড়যন্ত্র থেমে নেই। সেজন্য ডা. জাফরউল্যাহ চৌধুরী ঢাকার বুকে ও রাজশাহীতে মিজানুর রহমান মিনু আস্ফালন করেন, আবার একটা ১৫ আগস্টের ই'ঙ্গিত দেন। তারা যে ভেতরে ভেতরে ষ'ড়যন্ত্র করছে এগু'লো সেটিরই বহিঃপ্রকাশ। তাই আমা'দেরকে চোখ-কান খোলা রাখতে হবে।

তিনি বলেন, গত ৪০ বছর ধরে বহু ষ'ড়যন্ত্র হয়েছে, ২১ বছর ধরে আমা'দের শুনতে হয়েছে আওয়ামী লীগ কখনো রাষ্ট্র ক্ষমতায় যেতে পারবে না। যারা সেই কথা বলতো তাদের আস্ফালনকে মিথ্যে প্রমাণিত করে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসেছেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আজকে ব'ঙ্গবন্ধু ও তাঁর কন্যা শেখ হাসিনার সার্থকতা সেখানে যে পাকি'স্তানিরা আমা'দের স্বাধীনতা অর্জনের পর বলতো বাংলাদেশ আদৌ রাষ্ট্র হিসেবে টিকে থাকতে পারবে কি না, সেই পাকি'স্তান এখন বাংলাদেশের দিকে তাকিয়ে তাকিয়ে দীর্ঘশ্বা'স ফেলে। কারণ আমর'া মানব উন্নয়ন, সামাজিক ও অর্থনৈতিকসহ সমস্ত সূচকে পাকি'স্তানকে পেছনে ফেলে গেছি। মানব উন্নয়ন ও সামাজিক সূচকে অনেক আগেই ভারতকে অতিক্রম করেছি আমর'া। বর্তমানে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ভারতের চেয়ে বেশি।

XMA Header Image
তিনি বলেন, যে গণতন্ত্র সামর'িক ছাউনির মধ্যে বন্দী ছিলো ব'ঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা সেই গণতন্ত্রকে মুক্ত করে এনেছেন। তিনি বাংলাদেশের মানুষের ভোটের ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছেন, বাংলাদেশকে একটি মর'্যাদার আসনে আসীন করেছেন। আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শুধুমাত্র গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তা নয়, বাংলাদেশ পৃথিবীর সামনে একটি মর'্যাদাশীল রাষ্ট্রে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে।

About admin

Check Also

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের মায়ের ইন্তেকাল

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের মা ফৌজিয়া মালেক ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃ'ত্যুকালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *