নোয়াখালীতে বড় ভাইয়ের নিয়মিত ধর্ষণে ছোট বোন অন্তঃসত্ত্বা

নোয়াখালীর কবির হাট উপজে'লায় বড় ভাইয়ের ধা'রাবাহিক ধ'র্ষণে ছোট বোন (১৬) অন্তঃস'ত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় কিশোরীর চাচা বাদী হয়ে থানায় মা'মলা দায়ের করলে পুলিশ অ'ভিযুক্ত বাহারকে (১৯) গ্রে''প্ত ার করে।

পুলিশ জানায়, গ্রে''প্ত ার বাহারকে শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালী চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আ'দালতে হাজির করা হলে নিজের দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধা'রায় জবানবন্দী দিয়েছে সে। ৭ নং আমলি আ'দালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো: মহিবউল্ল্যাহ তার জবানবন্দী রেকর্ড করেন। পরে তাকে কারা'গারে পাঠানো হয়।

কবিরহাট থানায় দায়ের করা মা'মলা সূত্রে জানা যায়, কিশোরীটির মা নেই। বাবা শারীরিক প্রতিবন্ধি। তিনি চট্রগ্রামের সাতকানিয়া উপজে'লায় একটি ইট ভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করছেন। কিশোরীর বড় বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। বাহার গত ৩-৪ বছর ধরে ছোট বোনকে ধ'র্ষণ করেছেন। লোকল'জ্জার ভয়ে কিশোরী বি'ষয়টি কাউকে জানায়নি।

সম্প্রতি তার শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে গত ২৩মা'র্চ তার চাচি তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে পুরো ঘটনা খুলে বলে। কিশোরীটি বর্তমানে ৫ মাসের অন্তঃস'ত্ত্বা। এ ঘটনায় মেয়েটির চাচা বাদী হয়ে গত ২৪ মা'র্চ বাহারের বিরু'দ্ধে কবির হাট থানায় ধ'র্ষণমা'মলা দায়ের করেন।

কবিরহাট থানার ওসি টমাস বড়ুয়া বলেন, মা'মলা দায়েরের পর বাহার পলাতক ছিল। সে চট্রগ্রামের সাতকানিয়া উপজে'লার একটি ইট ভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলো। পুলিশ বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাহারকে ইটভাটা থেকে গ্রে''প্ত ার করে শুক্রবার সকালে নোয়াখালী নিয়ে আসে। পরে তাকে আ'দালতে পাঠানো হয়।

About admin

Check Also

খেলতে যাই

খেলতে যাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *