কোর্টের হাজতে স্বামীর জন্য ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে গিয়েছিল স্ত্রী

দিনাজপুর পুলিশ কোর্টের হাজত খানায় স্বামীকে শুকনা খাবারের স'ঙ্গে ইয়াবা দিতে গিয়ে ১৬ টি ইয়াবাসহ স্ত্রী গ্রে'ফতার হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিনাজপুর পুলিশ কোর্টের হাজত খানায় এইঘটনা ঘটে। গ্রে'ফতার হওয়া রুজিনা বেগম রিক্তা (২৫) পাবর্তীপুর উপজে'লার সাহেবপাড়া গ্রামের মিলন রহমান (২৭) এর স্ত্রী। মিলন রহমান একটি চুরি মা'মলার আসামী।

পুলিশ কোর্টের হাজত খানায় ইয়াবা দেয়ার অ'ভিযোগে পুলিশ বাদী হয়ে মা'দক আইনে কোতয়ালী থানায় একটি মা'মলা দায়ের করেছে। দিনাজপুর ডিবি পুলিশের ওসি আবু ইমাম জাফর জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় দিনাজপুর পুলিশ কোর্টে একটি চুরি মা'মলার আসামী মিলন রহমান (২৭) পুলিশ কোর্টের হাজত খানায় নিয়ে আসা হয়।

এ সময় তার স্ত্রী রুজিনা বেগম রিক্তা শুকনা খাবার দেয়ার জন্য পুলিশের কাছে যায়। হাজত খানায় ডিউটিতে থাকা পুলিশ ওই শুকনা খাবার দিতে না চাইলে রুজিনা কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলামের কাছে যায় এবং তার স্বামীকে খাবার দেয়ার জন্য অনুরোধ জানায়। এ সময় শুকনা খাবার গু'লো চেক করতে গিয়ে চিড়ার মধ্যে ১৬ পিস ইয়াবা ট্যাব'লেট পাওয়া যাওয়া।

এই ঘটনায় রুজিনাকে ডিবি পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়। ডিবি পুলিশের এসআই আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় একটি মা'মলা দায়ের করেন। রুজিনাকে দুপুর আড়াই টায় সিনিয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ ইসলমাইল হোসেনের আ'দালতে হাজির করা হয়। ডিবি পুলিশের সুত্রটি জানায়, রুজিনা বিচারকের কাছে স্বীকারোক্তিতে বলেছে, তার স্বামী মিলন দীর্ঘদিন থেকে মা'দক সেবন করে।

মা'দক সেবন না করলে সে শারীরিক ভাবে অস্থির হয়ে নানা ধরনের উপসর্গ তার শরীরে সৃষ্টি হয়। স্বামীর স'ঙ্গে বৃহস্পতিবার পুলিশ কোর্টে হাজত খানায় দেখা করলে সে যেখান থেকে হোক ইয়াবা ট্যাব'লেট সংগ্রহ করে দিতে বলে। রুজিনা ইয়াবা ট্যাব'লেট সংগ্রহ করে শুকনা খাবার চিড়ার মধ্য স্বামীর নিকট দিতে গিয়ে পুলিশের হাতে গ্রফতার হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন। বিচারক রুজিনার জবানব'ন্দি গ্রহন করে বিকেল ৪টায় জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

About admin

Check Also

খেলতে যাই

খেলতে যাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *