ভাইরাল হতেই শৌচাগারে পুরুষের নগ্ন ভিডিও করেছিলাম: মিথিলা

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০’ তানজিয়া জামান মিথিলা কয়েকদিন ধরে বেশ আলোচনায়। বিশেষ সহায়তা নিয়ে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০ হয়েছেন তিনি। এমন অ'ভিযোগের পর রীতিমতো টক অব দ্য ইন্ডাস্ট্রিতে পরিণত হয়েছেন এ মডেল।

মিথিলাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় ঘি ঢালে তার পুরাতন একটি সাক্ষাৎকার। যেখানে মিথিলা স্বীকার করেন, শৌচাগারে ঢুকে একজন পুরুষের ন'গ্ন ভিডিও ধারণ করেছিলেন তিনি। বি'ষয়টি অ’পরাধ হিসেবে দেখছেন নেটিজেনদের অনেকে। প'র্ণোগ্রাফি আইনে তার শাস্তির দাবিও করেছেন কেউ কেউ।

এদিকে ন'গ্ন ভিডিও ধারণ প্রস'ঙ্গে নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তানজিয়া জামান মিথিলা। ২৬ মা'র্চ দেওয়া স্ট্যাটাসে লিখেছেন, আপনারা যে বি'ষয়টি তুলে ধরেছেন সেটি খুবই প্রাস'ঙ্গিক। আমা'র কৃতকর্মের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি অল্প বয়সী এবং অনভিজ্ঞ ছিলাম। এমনকি এটি নিতান্তই একটি তামাশা ছিল এবং আমর'া মজার ছলে করেছি। আমর'া তিনজন তখন সহজে ভাইরাল 'হতে চেয়েছিলাম এবং আমর'া এ ধরনের কাজে যুক্ত 'হতে পারি সেটা সত্যি সে সময় বুঝতে পারিনি। আমি এখন বুঝতে পারছি, আমর'া কাজটি ঠিক করিনি এবং আমা'র শিশুসুলভ আচরণের জন্য আমি ভীষণভাবে দুঃখিত।

মিথিলা আরও লেখেন, যারা বি'ষয়টি তুলে ধরেছেন তাদের প্রশংসা করছি এবং আন্তরিকভাবে ক্ষ'মা চাইছি। একই স'ঙ্গে আমি বড় হচ্ছে এবং কোনটা ঠিক, কোনটা ভুল সেটা দেখছি। চলার পথে আপনি ভিন্ন কিছু দেখবেন, আপনি বেড়ে উঠবেন এবং এগিয়ে যাব'েন। আমি জানি বি'ষয়টি তুলে নিতে আপনার খুবই হৃদয়বান হবেন, আমাকে এগিয়ে যেতে ইতিবাচক ভক্তিতে সাহায্য করবেন এবং সবার স'ঙ্গে একত্রে শান্তি ও সম্প্রীতিতে বেড়ে ওঠার সুযোগ দিবেন।

২০১৮ সালে ধারণ করা ওই সাক্ষাৎকারে মডেল তানজিয়া জামান মিথিলা এবং সামিরা খান মাহিকে দেখা গেছে। উপস্থাপকের করা বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন তারা।

ভিডিওতে মিথিলা ও মাহি জানান, পুরুষ শৌচাগারে ঢুকে এক ব্যক্তির ন'গ্ন ভিডিও ধারণ করেছিলেন তারা। সেটি আবার নিজের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন মডেল মাহি। তাতে দেখা গেছে, ভিডিও ধারণ শেষে হাসতে হাসতে দৌঁড়ে বেরিয়ে আসছেন মিথিলা ও মাহি।

About admin

Check Also

খেলতে যাই

খেলতে যাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *