হেফাজতের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি সংসদে

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে দেশে বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডব চালানোর দায়ে হেফাজত ও তাদের সমর'্থনকারীদের বিরু'দ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।শনিবার (৩ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে শেখ ফজলুল করিম সেলিম এ দাবি জানান।

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করছিলেন। শেখ সেলিম বলেন, বিএনপি, জামায়াত, হেফাজতে ইসলাম স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিন হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হা'মলা চালিয়েছে, বাড়িঘর, অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়েছে। যারা স্বাধীনতা এক বিন্দু মানে-বিশ্বা'স করে, তারা এটা করতে পারে না। তাদের এদেশে থাকার কোনো অধিকার নেই।

তিনি বলেন, তারা এখন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরোধিতা করছে। মোদী যখন প্রথম বাংলাদেশে এসেছিলো তখন খালেদা জিয়া দেখা করে তার হাত আর ছাড়তে চায় না। তখন মোদী ভালো ছিলো, এখন কেন খারাপ হয়ে গেলো। হেফাজতে ইসলাম জ'ঙ্গি তৎপরতায় লি'প্ত হয় আর বিএনপি, জামায়াত সমর'্থন করে।

তারা কোনোভাবে ইসলামের হেফাজত করতে পারে না। শেখ সেলিম বলেন, বিএনপি স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি নিয়ে বন্ধ করেছিলো। কেউ স্বাধীনতার বিশ্বা'স করলে স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি বন্ধ করতে পারে না। বিএনপি, জামায়াত, হেফাজত ষ'ড়যন্ত্র করেছিলো। বিএনপি স্বাধীনতা দিবসে স্মৃ'তি সৌধেও যায়নি। এরা ৭১ এর পরাজিত শত্রু।

এখন সরকার পতনের নামে হু’মকি দিচ্ছে। কিছু দিন আগে বিএনপির নেতা মিনু প্রধানমন্ত্রীকে হু’মকি দিয়েছেন। এর মানে জিয়া যে ব'ঙ্গবন্ধুকে হ'ত্যা করেছিলো বিএনপি সেটা মনে করিয়ে দিলো। উল্লেখ্য, তিনি আরো বলেন, নামে হেফাজতে ইসলাম। ইসলামের হেফাজত করার কথা বললেও তারা ইসলাম বিরোধী। ইসলামে জ'ঙ্গিবাদ, আগু'ন দেওয়া সমর'্থন করে না। ইসলামকে হেফাজত করবে আল্লাহ, তারা কী হেফাজত করবে? সরকারকে অবশ্যই এদের বিরু'দ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

About admin

Check Also

মক্কা-মদিনায় ১০ রাকাত তারাবির নির্দেশ

করো’নাভাইরাসের কারণে সারাবিশ্বেই এক ভ'য়াবহ সঙ্কট তৈরি হয়েছে। এর মধ্যেই বিভিন্ন দেশে আগামীকাল থেকে রোজা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *