পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদদের প্রতি ফোঁটা রক্তের বদলা নেওয়া হবে: বাবুনগরী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিরোধী বিক্ষো'ভে নি'হতদের প্রতি ফোঁটা র'ক্তের বদলা নেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

আজ শনিবার সকালে সংবাদমাধ্যমে হেফাজত আমিরের ব্যক্তিগত সহকারী ইন’আমুল হাসান ফারুকী প্রেরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন, ‘ঢাকা, চট্টগ্রামের হাটহাজারীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় মোদির আগমনের প্রতিবাদে শান্তিপূর্ণ বিক্ষো'ভ সমাবেশ করেছে তৌহিদি জনতা। বিভিন্ন জায়গায় আন্দোলনরতদের ওপর হা'মলার সংবাদ পাওয়া গেছে। হাটহাজারীতে আমা'র কলিজার টুকরা চারজন ভাইকে শ’হীদ করেছে পুলিশ। শ’হীদদের গা থেকে ঝরা এ র'ক্ত কভু বৃথা যেতে দেওয়া হবে না। পুলিশের গু'লিতে নি'হত তৌহিদি জনতার প্রতি ফোঁটা র'ক্তের বদলা নেওয়া হবে।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগমনে প্রতিবাদে করা বিক্ষো'ভে গতকাল শুক্রবার পুলিশের হা'মলায় নি'হত ও আ'হত হয় মুসল্লিরা। এর প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলামের ডাকে আজ শনিবার সারাদেশে শান্তিপূর্ণ বিক্ষো'ভ এবং আগামীকাল রোববার সকাল-সন্ধ্যা সর্বাত্মক শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে হরতাল কর্মসূচি পালন করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন হেফাজতের আমির।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ভারতের কসাই মোদির আগমনের প্রতিবাদে গতকাল ঢাকা বায়তুল মোকাররম, হাটহাজারী, যাত্রাবাড়ী, বি-বাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় আন্দোলনরত তৌহিদি জনতার ওপর গু'লিবর্ষণ করে আনুমানিক ছয়জনকে শ’হীদ করা হয়েছে। গু'লি ও টিয়ারস্যাল নি'ক্ষেপ করে প্রায় চারশত প্রতিবাদী তৌহিদি জনতাকে র'ক্তাক্ত করা হয়েছে। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশের গু'লিবর্ষণের মতো ন্যাক্কারজনক ঘটনা কখনো মেনে নেওয়া যায় না। কার নির্দেশে নিরীহ-নিরস্ত্র ছাত্রদেরকে এভাবে হা'মলা ও শ’হীদ করা হলো, এর জবাব প্রশাসনকে অবশ্যই দিতে হবে। এবং অ'ভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।’

আল্লামা বাবুনগরী আরও বলেন, ‘তৌহিদি জনতার এ আন্দোলন দেশ কিংবা সরকারের বিরু'দ্ধে ছিল না। এই আন্দোলন ছিল মুসলমানদের র'ক্তখেকো, বাবরি মসজিদ ধ্বং'সকারী মোদি বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদে। এই শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে তৌহিদি জনতার ওপর পুলিশের এমন বর্বরোচিত হা'মলা বরদাশত করা যায় না। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

মোদির আগমনের কারণেই বাংলাদেশে র'ক্ত ঝরেছে উল্লেখ করে আমিরে হেফাজত বলেন, ‘অনতিবিলম্বে মোদিকে বাংলাদেশ ছাড়তে হবে। ৯০% মুসলিম অধ্যুষিত বাংলাদেশে মুসলমানদের খু'নি মোদি থাকতে পারবে না।’ পুলিশের গু'লিতে নি'হতদের ক্ষ'তিপূরণ এবং আ'হতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সরকার প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট ক'র্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান আল্লামা বাবুনগরী।

হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে আমিরে হেফাজত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী আরও বলেন, ‘মোদি ইস্যুতে যদি আর একজন তৌহিদি জনতার র'ক্ত ঝরে বা ওলামায়ে কেরামকে হা'মলা মা'মলা ও হয়রানি করা হয় তাহলে এর প্রতিবাদে পুরো দেশে আন্দোলনের দাবানল জ্বলে উঠবে। প্রয়োজনে শীর্ষ ওলামায়ে কেরামের সাথে পরামর'্শ করে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করতে বাধ্য।’

About admin

Check Also

খেলতে যাই

খেলতে যাই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *