মাত্র দুই বছরের মাথায় সংসার জীবনের ইতি টানলেন পুতুল

বিয়ের দুই বছর পুর্তির কিছুদিন আগে বিচ্ছেদের খবর দিলেন স'ঙ্গীতশিল্পী সাজিয়া সুলতানা পুতুল। ১৪ মা'র্চ (রোববার) সামাজিক মাধ্যমে একটি পোস্ট করে বি'ষয়টি জানান তিনি। যেখানে সংসার ভাঙনের কারণও উল্লেখ করেন এই গায়িকা।

পুতুল লেখেন, ‘দুই বছর আগে বিয়ের বন্ধনে আব'দ্ধ হয়েছিলাম, ঢুকেছিলাম যুগল জীবনযাপনে। বিবাহিত জীবনের খুব অল্প দিনের মাথায় বুঝেছিলাম পথটা কঠিন থেকে আরও কঠিন হচ্ছে। এই পথটা ঠিক যেন আমা'র কল্পনার সেই পথটা নয়। যে পথে আনন্দে হেঁটে যাওয়া যায় অক্লেশে। মত আর আদর্শিক পার্থক্যগু'লো নিছক পার্থক্য থেকে রূপ নিচ্ছিল চূড়ান্ত দ্বন্দ্বে। সম্পর্ক মুমূর্ষু হচ্ছিল, ক্ষ'তিগ্রস্ত হচ্ছিল আমা'র সৃষ্টিশীল সত্তা।’

তিনি আরও লেখেন, ‘বিচ্ছিন'্নতার সি'দ্ধান্ত নিয়েছিলাম তখনই। হয়েছিল বিচ্ছেদ। অতঃপর আবার আমা'র সেই একক জীবনে ফেরা। সুর আর সাহিত্যের সাথে নির্বিঘ্ন একক সংসার। বিয়েটা ঘটা করে হবার বি'ষয়। বিচ্ছেদে ঘটা করার কিছু নেই। বিচ্ছেদে বি'ষাদের সুর বাজে আ'ত্মায়। সেই সুর মন পাড়াতে একলা বাজাই ভালো। সকলকে নিয়ে সেই বিচ্ছেদী সুর উদযাপনের কিছু নেই।’

বিচ্ছেদের পর তার অবস্থা প্রস'ঙ্গে পুতুল লেখেন, ‘কিন্তু চূড়ান্ত সত্য এই, সেই বি'ষাদে কোথাও মুক্তির গন্ধ মিশে থাকে, থাকে মুমূর্ষুতার অবসানে লম্বা করে নিঃশ্বা'স নেওয়া। জীবনটা বেঁচে ওঠার সুযোগ পায় আরও একবার। সেই জীবনটাকে বাঁচিয়ে দেওয়া জীবনের প্রতিই সুবিচার বলে বিশ্বা'স করি।’

পুতুলের বিচ্ছেদ হয়েছে আরও আগে। কিন্তু পোস্টের মাধ্যমে সেই খবর প্রকাশের কারণ জানিয়ে তিনি লেখেন, ‘আজ এত দিন পর এই কথাগু'লো বলার একটাই কারণ। সম্পর্কটার ভেতরে থাকলে যৌ'থ জীবন উদযাপনের দুই বছর 'হতো আজ। যেহেতু একক জীবনযাপন করছি, এই দিনটার কোনও বিশেষত্ব বা মহিমা নেই। বছরের অন্য দিনগু'লোর মতোই একটা তারিখ মাত্র। শুভেচ্ছা শুভকামনা জানানোর কিছু নেই। জীবন সহজ হবার স্বপ্নে যেমনি শুভকামনা জানাই নিজেকে নিজে প্রতিদিন, আজও তা জানাচ্ছি। ফেসবুক যতোই স্মৃ'তিতে ফেরাতে চাক দুই বছর আগের আজকের দিনে। নিজের কাছে নিজের প্রত্যয় কেবলই সামনে তাকানোর।’

প্রস'ঙ্গত, ২০১৯ সালের ১৫ মা'র্চ বাগদান হয়েছিল পুতুলের। এরপর ২০ মা'র্চ বিয়ে করেছিলেন। তার প্রাক্তন স্বামী কানাডা প্রবাসী আলোকচিত্রী ইসলাম নুরুল।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *