সম্প্রতি চার যুবককে নিয়ে পালালো তরুণী, অতঃপর লটারির মাধ্যমে হলো বিয়ে

লটারির মাধ্যমে স্বামী নির্বাচন করতে হয়, এমন কথা আগে কখনো শোনা যায়নি। তবে সম্প্রতি এ রকম অদ্ভুত ঘটনারই সাক্ষী থেকেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রাম।

একজন নয়; দুইজন নয়, চার প্রেমিককে স'ঙ্গে নিয়ে পালিয়েছিল ভারতের এক তরুণী। এরপর খোঁজাখুজির পর ধ’রাও পড়েন। শাস্তি হিসেবে লটারির মাধ্যমে চার প্রেমিকের মধ্যে একজনকে বিয়ে করতে হয় সেই তরুণীকে।

খবরে বলা হয়, অম্বেডকরনগরের টান্ডা থানা এলাকার এক তরুণী চলতি মাসের শুরুতে চার যুবকের স'ঙ্গে পালিয়ে যান। ওই যুবকরা সবাই পার্শ্ববর্তী আজিমনগর থানা এলাকার বাসিন্দা।

এই চার যুবকের স'ঙ্গেই প্রেম করতেন তরুণী। প্রথমে নিজের বাড়ি থেকে পালিয়ে এক যুবকের আ'ত্মীয়ের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন ওই তরুণী।
তবে বেশিদিন পালিয়ে থাকতে পারেননি।

পরে চার যুবকসহ গ্রামে ফিরতে বাধ্য হন তরুণী। বাবা-মা থানায় অ'ভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি নিলে গ্রামবাসীর বাধায় তা আর হয়ে ওঠেনি।
এই ঘটনা নিয়ে পঞ্চায়েতের সভা বসে।

সেখান থেকে তরুণীর পরিবারকে প্রস্তাব দেওয়া হয় চারজনের মধ্যে কোনো এক যুবকের স'ঙ্গে বিয়ে দেওয়া হবে তরুণীর। তার পরিবারও তাতে সম্মতি দেয়। কিন্তু ওই চারজনের মধ্যে কাকে বিয়ে করবেন তরুণী?

এ নিয়ে তৈরি হয় জটিলতা। কারণ ওই তরুণী ঠিক করতে পারছিলেন না কাকে বিয়ে করবেন তিনি। কারণ, চার যুবককেই পছন্দ ছিল তার। এর মধ্যে কাকে সবচেয়ে বেশি পছন্দ তাও ঠিক করতে পারছিলেন না।

অ’পরদিকে যুবকরাও ঠিক করতে পারছিলেন না, কী করবেন। তখন পঞ্চায়েতের ক'র্তাব্যক্তিরা ঠিক করেন, চার যুবকের নাম লেখা কাগজ রাখা হবে একটি পাত্রে। চারটির মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া কাগজে যার নাম থাকবে তিনিই বিয়ে করবেন তরুণীকে।

About admin

Check Also

কাশিমপুর নেওয়া হলো রফিকুলকে

র‍্যাব'-পুলিশের কঠোর নিরাপ'ত্তার মধ্যে দিয়ে কথিত ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মা'দানীকে গাজীপুর জে'লা করাগার থেকে কাশিমপুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *